Magic Lanthon

               

ম্যাজিক লণ্ঠন

প্রকাশিত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:০০ মিনিট

অন্যকে জানাতে পারেন:

‘মহাভারত’ নিয়ে এলাহি কাণ্ড, বাজেট ৭০০ কোটি!

ম্যাজিক লণ্ঠন

বলিউডপ্রেমীদের জন্য বড় সুখবর। প্রাচীন ভারতের প্রধান মহাকাব্য ‘মহাভারত’ নিয়ে নতুন সিনেমা নির্মিত হতে যাচ্ছে। যেটির বাজেট ধরা হয়েছে ৭০০ কোটি রুপি। ফলে এটিই হতে যাচ্ছে ভারতের ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যয়বহুল সিনেমা।

একটি সূত্রের বরাতে খবরটি জানিয়েছে বলিউড হাঙ্গামা। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রযোজক ফিরোজ নাদিয়াদওয়ালা ইতোমধ্যে ‘মহাভারত’ নিয়ে কাজ শুরু দিয়েছেন। গত ৪-৫ বছর ধরেই চলছে চিত্রনাট্য তৈরির কাজ। পাশাপাশি কয়েক বছর ধরে প্রি প্রোডাকশনের অন্যান্য প্রস্তুতি গুছিয়ে নিচ্ছে টিম।

ওই সূত্রের দাবি, সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৫ সালের প্রথম দিকে শুরু হবে সিনেমাটির মূল চিত্রায়ন। এরপর একই বছরের ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে বড় পর্দায়। মূলত হিন্দি ভাষায় নির্মিত হবে ‘মহাভারত’। তবে পাশাপাশি আরও কয়েকটি ভাষায় মুক্তি দেওয়া হবে।

বিগ বাজেটের এই সিনেমায় অভিনয় করবেন কারা? জানা গেলো, অক্ষয় কুমার, অজয় দেবগন, রণবীর সিং, পরেশ রাওয়াল, নানা পাটেকর, অনিল কাপুরের মতো তারকাকে বিভিন্ন চরিত্রে ভাবছেন প্রযোজক ফিরোজ। নারী চরিত্রে তারকার পাশাপাশি নতুন মুখও দেখা যাবে। এছাড়া দক্ষিণী সিনেমার প্রথম সারির কয়েকজন তারকাও থাকবেন সিনেমায়।

মহাকাব্যিক সিনেমাটি পরিচালনা করবেন কে, তা এখনও ঠিক করা হয়নি। তবে প্রযোজক ফিরোজ নাদিয়াদওয়ালা চাইছেন, সিনেমাটি এমনভাবে বানাতে, যাতে হলিউডের মার্ভেল ও ডিসি কমিকসের সিনেমাগুলোর সঙ্গে তুলনা করা যায়

১৯৬৫ সালে বলিউডে ‘মহাভারত’ সিনেমা নির্মিত হয়েছিলো। সেটি দর্শকের হৃদয় জয় করে বক্স অফিসে সফল হয়। সূত্রের ভাষ্য, ‘ওই সিনেমার আদলেই নির্মিত হবে এটি। এর অধিকাংশ অ্যাকশন দৃশ্য হবে বাস্তবসম্মত। এখানে ভিএফএক্সের চেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে চরিত্র, চিত্রনাট্য ও আবেগের দিকে।’

চমকের শেষ এখানেই নয়, সিনেমাটির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের কাজ হবে নিউইয়র্কে। দুইবার অস্কারজয়ী সংগীত প্রযোজক হ্যানস জিমার দায়িত্বটি পালন করবেন। ভিএফএক্সের কাজও করবে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষস্থানীয় একটি প্রতিষ্ঠান।

ভারতে এর আগে এত বড় পরিসরে কোনও সিনেমা নির্মিত হয়নি। তাই দর্শকের জন্য বিস্ময়কর কিছুই হতে যাচ্ছে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের। যদিও নিকট অতীতে অনেক ব্যয়বহুল সিনেমা ব্যর্থ হয়েছে। ‘মহাভারত’ কতটা জ্বলে উঠতে পারে, তা দেখতে হলে দর্শককে অপেক্ষা করতে হবে আরও অন্তত তিন বছর।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন