Magic Lanthon

               

ইব্রাহীম খলিল

প্রকাশিত ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:০০ মিনিট

অন্যকে জানাতে পারেন:

‘শনিবার বিকেল’ মুক্তি চেয়ে ছোট পর্দার নির্মাতাদের লিখিত চিঠি

ইব্রাহীম খলিল

চলচ্চিত্র, স্বপ্ন ও বাস্তবতা। এই তিন নিয়ে পথচলা শুরু। চলচ্চিত্রকে মাঝখানে রেখে স্বপ্ন আর বাস্তবতা নিজেদের মধ্যে ছুটোছুটি করে। একে অন্যের কাছে কখনো ধরা দেয়, কখনো পালিয়ে যায়। তবুও চেষ্টা অব্যাহত। আর এই চেষ্টা থেকেই এ যাত্রার শুরু। তাই শেষটা নিয়ে আমরা কখনো ভাবি না। ‘ম্যাজিক লণ্ঠন’ বাংলা ভাষায় প্রকাশিত একটি গবেষণা পত্রিকা। যার জন্ম ২০১১ খ্রিস্টাব্দের ৫ ফেব্রুয়ারি।

পত্রিকাটি মূলত চলচ্চিত্রবিষয়ক। তবে এর শতকরা ৯০ ভাগ আধেয় জুড়ে চলচ্চিত্র আর বাকি ১০ শতাংশে থাকে গণমাধ্যম ও নিউমিডিয়ার বিভিন্ন দিক। প্রশ্ন আসা স্বাভাবিক, কেনো এ বিভাজন? উত্তরটা এক কথায়, শিক্ষার্থী। যাদেরকে নিয়ে এই পথচলা।

আপাত দৃষ্টিতে এটি গবেষণা পত্রিকা মনে হলেও একে কেন্দ্র করে নানা কর্মকাণ্ড সম্পন্ন হয়। আমাদের লক্ষ্য মূলত চলচ্চিত্রের ভালো দর্শক, ভালো লেখক মোটাদাগে চলচ্চিত্রপ্রেমী তৈরি করা। এর পাশাপাশি আমরা চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যমের অন্যান্য শাখা নিয়ে পড়াশুনা, সেমিনার, আলোচনা, নিয়মিত প্রদর্শনী ও স্বল্প দৈর্ঘ্যরে চলচ্চিত্র নির্মাণে কাজ করে থাকি।

মূলত এই পত্রিকায় লেখক হিসেবে রয়েছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এর পাশাপাশি আগ্রহী শিক্ষক ও সাবেক শিক্ষার্থীরাও আছেন। শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে লেখার বিষয়টি এখানে অনেকটা সমবায় পদ্ধতিতে হয় (এটা বাস্তবতা!)। বিষয়টা এমন—সবাই মিলে বিষয় ঠিক করে আগ্রহের ভিত্তিতে তা বণ্টন করা হয় সবার মধ্যে। এরপর একে একে সবাই নির্দিষ্ট দিনে সবার সামনে তাদের লেখা উপস্থাপন করেন। তখন এসব লেখা নিয়ে চলে তুমুল আলোচনা, সমালোচনা। দায়িত্বপ্রাপ্ত লেখক সেই আলোচনা থেকে তার প্রয়োজন মতো উপাদান সংগ্রহ করে সমৃদ্ধ করেন তার লেখাকে। একজন লেখককে এভাবে পাঁচ থেকে সাতবার তার লেখা উপস্থাপন করে পূর্ণাঙ্গতা অর্জন করতে হয়। তারপরও প্রশ্ন, আদৌ পূর্ণতা  আসে কি?

পত্রিকাটি ষান্মাসিকভাবে প্রকাশ হয়। অর্থাৎ বছরে দুইবার—জুলাই ও জানুয়ারি। ২০১১ খ্রিস্টাব্দের ১৫ জুলাই এর প্রথম সংখ্যা প্রকাশ হয়। এরপর থেকে তা নিয়মিত প্রকাশ হচ্ছে।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন